মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

(১)এক অবস্থানে সেবা (টঙ্গীবাড়ী জোনাল অফিস) (২) টঙ্গীবাড়ী অভিযোগ কেন্দ্র (৩)আলদী অভিযোগ কেন্দ্র (৪) বেতকা অভিযোগ কেন্দ্র (৫) বালিগাঁও অভিযোগ কেন্দ্র

 

১। এক অবস্থানে সেবাঃ                    

 নতুন সংযোগ গ্রহন

ক) গ্রাহক  সেবা কেন্দ্র থেকে নতুন সংযোগের আবেদন পত্র পাওয়া যাবে ।  

খ) আবেদন পত্রটি যথাযথভাবে পূরন করে প্রয়োজনীয় দলিলাদিসহ নির্ধারিত আবেদন ফি পবিসের ক্যাশ কাউন্টারে জমা প্রদান করে  জমা রশিদ সংগ্রহ করতে হবে ।

গ)সমীক্ষা ফি জমা হওয়িার পর সদস্য সেবা বিভাগ কর্তৃক প্রাথমিক সমীক্ষা/যাচাই করে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে স্থানীয় উপদেষ্টা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক কারিগরী সমীক্ষার পর লাইন নির্মান সহ সংযোগের জন্য সদস্য সেবা বিভাগ কর্তৃক ডিমান্ড নোট ইস্যু করা হয় ।

ঘ)ডিপোজিট ওয়ার্কের আওতায় লাইন নির্মানের ক্ষেত্রে ট্রান্সফরমার প্রয়োজন হলে গ্রাহক কর্তৃক তা সরবরাহ করতে হবে ।

ঙ)প্রাক্কলন জমা হওয়ার পর প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সাধারনত দুই মাসের মধ্যে লাইন নির্মানের পর ও গ্রাহকের নিজ দায়িত্বে অভ্যন্তরীন ওয়্যারিং সম্পন্ন করনের পর তা পরিদর্শন সাপেক্ষে আনুষাঙ্গিক কার্যাদি সম্পন্ন করে গ্রাহকের আঙ্গিনায় মিটার স্থাপন পূর্বক সংযোগ দেয়া হয় । (সরকারী নিষেধাঙ্গা না থাকা সাপেক্ষে)

চ) সমীক্ষা ফি সহ আবেদনের পর কোন কারনে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন করা সম্ভবপর না হলে যথাসম্ভব দ্রুত তার কারন জানিয়ে আবেদনকারীকে অবহিত করা হবে ।

ছ) সংযোগের পর পরবর্তী মাসের বিলিং সাইকেলে অনুযায়ী গ্রাহকের প্রথম মাসের বিল জারি করা    হবে ।

জ) মহা পরিকল্পনার আওতায় লাইন নির্মানের ক্ষেত্রে অর্থ বৎসরের প্রথম দিকে মাইলেজ ও বাজেট বরাদ্দ প্রাপ্তি সাপেক্ষে উপজেলা ও গ্রামওয়ারী নির্মিতব্য লাইনের তালিকা পবিস সদর দপ্তরের নোটিশ বোর্ডে দেয়া হয়।

ঝ)পরবর্তীতে ডিজাইন হওয়ার পর সদস্য হওয়া ও অফিস থেকে প্রযোজ্য ওয়্যারিং মালামাল গ্রহন সাপেক্ষ্যে লাইন নির্মানের ব্যবস্থা নেয়া হয় ।

ঞ) লাইন নির্মানের পর ৭৫% সদস্যের ওয়্যারিং সম্পন্ন হওয়া সাপেক্ষে জামানত গ্রহন করে মিটার স্থাপন পূর্বক সংযোগ দেয়া হয় ।

 

বিল সংক্রান্ত অভিযোগঃ

বিল সংক্রান্ত যেকোন অভিযোগ যেমনঃ চলতি মাসের বিল পাওয়া যায়নি । বকেয়া বিল, অতিরিক্ত বিল ইত্যাদির জন্য এক অবস্থানে সেবা কে্ন্দ্রে যোগাযোগ করলে তাৎক্ষনিক সমাধান সম্ভব হলে তা নিষ্পত্তি করা হবে । অন্যথায় একটি নিবন্ধন নম্বর দিয়ে পরবর্তী যোগাযোগের সময় জানিয়ে দেয়া হবে এবং পরবর্তী ০৭ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে ।

 

 

 

 

বিদ্যুৎ সংযোগ গ্রহনের ধাপঃ

আবেদন> সমীক্ষা ফি সমীক্ষা> বৈদ্যুতিক প্লান> প্রাক্কলন গ্রহন> ষ্টেকিং করন> চুক্তিপত্র > লাইন নির্মান>আভ্যন্তরীন ওয়্যারিং> ওয়্যারিং পরিদর্শন> জামানত গ্রহন> সিএমও> সংযোগ প্রদান।

 

বিল পরিশোধঃ

পবিস সদর দপ্তর, সিপাহীপাড়া/মুন্সীগঞ্জ/শ্রীনগর/সিরাজদিখান/টঙ্গীবাড়ী/লৌহজং জোনাল অফিসের ক্যাশ কাউন্টারে অথবা সংশ্লিষ্ট এলাকার নির্ধারিত ব্যাংকে গ্রাহকগন বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারবেন । এছাড়াও টেলিটক এস এম এস এর মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা যায় ।

 

০২। টঙ্গীবাড়ী অভিযোগ কেন্দ্রঃ টঙ্গীবাড়ী অভিযোগ কেন্দ্রের আওতাধীন বিদ্যুৎ বিভ্রাট সংক্রান্ত গ্রাহকের যাবতীয় অভিযোগ সমাধান করা হয় ।

০৩।আলদী অভিযোগ কেন্দ্রের আওতাধীন বিদ্যুৎ বিভ্রাট সংক্রান্ত গ্রাহকের যাবতীয় অভিযোগ সমাধান করা হয় ।

০৪। বেতকা অভিযোগ কেন্দ্রের আওতাধীন বিদ্যুৎ বিভ্রাট সংক্রান্ত গ্রাহকের যাবতীয় অভিযোগ সমাধান করা হয় ।

০৫। বালিগাঁও অভিযোগ কেন্দ্রের আওতাধীন বিদ্যুৎ বিভ্রাট সংক্রান্ত গ্রাহকের যাবতীয় অভিযোগ সমাধান করা হয় ।

 

 

বিদ্যুৎ বিভ্রাটের অভিযোগঃ

পবিস সদর দপ্তর সিপাহীপাড়া/মুন্সীগঞ্জ/শ্রীনগর/সিরাজদিখান/টঙ্গীবাড়ী/লৌহজং জোনাল অফিস অথবা সংশ্লিষ্ট এলাকার অভিযোগ কেন্দ্রে আপনার বিদ্যুৎ বিভ্রাটের অভিযোগ জানানো হলে আপনাকে অভিযোগ নম্বর ও নিষ্পত্তির সম্ভাব্য সময় জানিয়ে দেয়া হবে ।